• বুধবার   ০৮ এপ্রিল ২০২০ ||

  • চৈত্র ২৫ ১৪২৬

  • || ১৪ শা'বান ১৪৪১

নওগাঁ দর্পন
২৭

স্থায়ী কমিটি ভেঙে দিলেই সচল হবে বিএনপি, অভিমত জামায়াত নেতাদের!

ডেস্ক নিউজ

প্রকাশিত: ১৬ মার্চ ২০২০  

 সমস্যার অন্ত নেই বিএনপিতে। বর্তমানে দলটিতে ‘সর্বাঙ্গে ব্যথা, ওষুধ দেবো কোথা’ পরিস্থিতি বিরাজ করছে। যারই অংশ হিসেবে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি আন্দোলনসহ অন্যান্য রাজনৈতিক ব্যর্থতায় দিশেহারা দলটি-এমনটাই প্রতীয়মান হচ্ছে। এমতাবস্থায় বিএনপির এক সময়ের রাজনৈতিক মিত্র জামায়াতের একটি অংশ মনে করছে, দলটির বয়স্ক-ভীতু ও আন্দোলনবিমুখ নেতাদের ব্যর্থ নেতৃত্বের কারণে আজ এই অবস্থা। স্থায়ী কমিটি থেকে ওই সমস্ত নেতাদের বাদ না দিলে দলটি কোনদিনই রাজপথমুখী হতে পারবে না এবং দাবি আদায়ও করতে পারবে না।

বাংলানিউজ ব্যাংকের সঙ্গে একান্ত আলাপকালে জামায়াতে ইসলামীর ঢাকা মহানগরী দক্ষিণের সেক্রেটারি ড. শফিকুল ইসলাম মাসুদ বলেন, বিএনপি একটা সময়ে দেশের বৃহত্তর একটি রাজনৈতিক দল ছিল। কিন্তু দলের ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের অনুপস্থিতি এবং খালেদা জিয়া কারান্তরীণ হওয়ার পর বিএনপি ভুলেভরা রাজনীতির গোলকধাঁধায় আটকে গেছে। তাদের দু’জনার অনুপস্থিতিতে স্থায়ী কমিটিই বিএনপির যাবতীয় নীতি-নির্ধারণ ও সিদ্ধান্ত গ্রহণ করে। অথচ সেই স্থায়ী কমিটির সদস্যরা ভীতু ও আন্দোলনবিমুখ। তারা বিএনপিকে গোল টেবিল বৈঠক ও মানব বন্ধনে আটকে রেখেছে। এ কারণে দল তার নির্দিষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারছে না।

তিনি আরো বলেন, বিএনপি তথা ২০ দলীয় জোটকে যদি আবার গতিশীল করতে হয় তবে বিএনপির বয়োজ্যেষ্ঠ ও মেয়াদোত্তীর্ণ নেতাদের গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দিতে হবে। তবেই সংগঠনটি গতি ফিরে পাবে। ফিরে পেতে পারে হারানো যৌবন।

অন্যদিকে পরিচয় গোপন রাখার শর্তে জামায়াতের আরেক শীর্ষ নেতা বলেন, ২০ দলীয় জোটের স্থবিরতার জন্য বিএনপির নেতারা দায়ী। দলটির স্থায়ী কমিটি ভেঙে দেয়া ছাড়া বিএনপিকে বাঁচানোর দ্বিতীয় কোন পথ খোলা নেই। এ মুহুর্তে তাই বৃহত্তর স্বার্থে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্যদের সরিয়ে দেয়ার সিদ্ধান্ত নেয়া উচিত তারেক রহমানের।

নওগাঁ দর্পন
রাজনীতি বিভাগের পাঠকপ্রিয় খবর