মঙ্গলবার   ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯   আশ্বিন ১ ১৪২৬   ১৭ মুহররম ১৪৪১

নওগাঁ দর্পন
সর্বশেষ:
পত্নীতলায় আদিবাসী প্রেমিক যুগলের লাশ উদ্ধার চাকুরির প্রলোভনে মান্দার মেয়েকে ঢাকায় ধর্ষণ বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বহরে যুক্ত হওয়া বোয়িং (৭৮৭-৮) ড্রিমলাইনার গাঙচিল উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ধামইরহাটে মাদক সেবনের দায়ে ৬ জনের জেল ও জরিমানা আত্রাইয়ে ডেঙ্গু সচেতনতা মূলক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় সাপাহারে পরিস্কার অভিযান সাপাহার ঐতিহ্যবাহী জবই বিলে মাছের পোনা অবমুক্ত আত্রাই থানা পুলিশের অভিযানে ৯জন আটক গ্রেনেড হামলার প্রতিবাদে নিয়ামতপুরে আলোচনা সভা সাপাহারের করল্যা চাষে বিপ্লব
১৩০

মেঘনা-গোমতি সেতুতে ১০ সেকেন্ডেই স্বয়ংক্রিয়ভাবে কাটা হবে টোল

অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশিত: ২৬ মে ২০১৯  

দেশের অর্থনীতির লাইফ লাইনখ্যাত ঢাকা-চট্টগ্রাম ফোরলেন মহাসড়কের দ্বিতীয় মেঘনা-গোমতি সেতু চালুর পর পাল্টে গেছে মহাসড়কের দৃশ্যপট। প্রতিদিন যানজটে ঘণ্টার পর ঘণ্টা আটকে থাকার সেই চির-চেনা দৃশ্য আর নেই। দীর্ঘদিন ধরে নারায়ণগঞ্জের কাঁচপুর, মেঘনা ও দাউদকান্দি এলাকায় ৩টি সেতু কেন্দ্রিক তীব্র যানজটে পড়ে প্রায় প্রতিদিন পণ্য ও যাত্রীবাহী যানবাহনের যাত্রীদের নাকাল অবস্থার সৃষ্টি হতো। বিশেষ দুই ঈদে ও ছুটির দিনগুলোতে যানজটের পরিস্থিতি ভয়াবহ আকার ধারণ করতো। কিন্তু এ বছর আসন্ন ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে ইতোমধ্যে গত ১৬ মার্চ এ মহাসড়কের কাঁচপুর দ্বিতীয় সেতু এবং গত শনিবার ২য় মেঘনা ও গোমতী সেতু উদ্বোধনের পর পরিস্থিতি দ্রুত পাল্টে গেছে।

রোববার ভোর থেকে বিকেল পর্যন্ত মহাসড়কে সেতু কেন্দ্রিক কোনো যানজট না থাকায় যাত্রীরা খুব অল্প সময়ে তাদের গন্তব্যে পৌঁছতে সক্ষম হয়েছে বলে জানিয়েছেন হাইওয়ে দাউদকান্দি হাইওয়ে থানা পুলিশের ওসি আবুল কালাম আজাদ।

তিনি জানান, মেরামতের জন্য পুরাতন সেতু দুটি আপাতত বন্ধ রাখা হলেও নতুন সেতুগুলো ফোরলেনের হওয়ায় যানবাহনের কোনো চাপ নেই।

এদিকে সেতু দুটি চালুর আগে কুমিল্লা থেকে ঢাকার ২ ঘণ্টার দূরত্বে কখনও কখনও যানজটে আটকে থেকে সময় লাগতো ৫/৬ ঘণ্টা। কিন্তু ওই মহাসড়কের ৩টি সেতু চালুর পর এখন সময় লাগছে মাত্র দেড় থেকে দুই ঘণ্টা।

কুমিল্লা-ঢাকা সড়কে চলাচলকারী রয়েল কোচের চালক রমিজ উদ্দিন জানান, ২টি সেতু এলাকায় আগে ঘণ্টার পর ঘণ্টা আটকে থেকে টোল দিতে হতো, কিন্তু রোববার ঢাকা থেকে মাত্র পৌনে ২ ঘণ্টায় কুমিল্লায় আসা সম্ভব হয়েছে। কুমিল্লা থেকে ভোরে ঢাকায় যাওয়া এশিয়া লাইনের যাত্রী ও বাংলাদেশ ফেডারেল ইউনিয়ন অব নিউজপেপার প্রেস ওয়ার্কার্স সভাপতি মো. আলমগীর হোসেন খান জানান, রোববার ভোরে মহাসড়ক ফাঁকা ছিল। মেঘনা-গোমতী সেতু এলাকায় যানজট ছিল না, তাই মাত্র পৌনে ২ ঘণ্টায় ঢাকায় পৌঁছাতে পেরেছি।

দাউদকান্দির স্থানীয় সাংবাদিক শরীফ প্রধান জানান, আগে ফোরলেনের গাড়িগুলো পুরাতন সেতুর ২ লেন দিয়ে চলাচল করতো। কিন্তু এখন নতুন সেতুগুলো ফোরলেন হওয়ায় যানবাহনের চাপ নেই বললেই চলে। পুরাতন ব্রিজগুলো মেরামতের জন্য আপাতত বন্ধ রাখা হলেও যানবাহন চলাচলে ফেরলেনের সেতুগুলোতে সমস্যা হচ্ছে না।

কুমিল্লা জেলা সড়ক পরিবহন মালিক গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক মো. তাজুল ইসলাম জানান, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ২য় কাঁচপুর, মেঘনা ও গোমতী সেতু চালুর ফলে এবারের ঈদে যাত্রীরা খুব কম সময়েই বাড়ি ফিরতে পারবে বলে আমরা আশা করি।

তিনি আরও বলেন, শনিবার ২য় মেঘনা ও গোমতী সেতু চালুর ফলে রোববার কুমিল্লা থেকে ২ ঘণ্টায় যাত্রীরা ঢাকা-কুমিল্লায় যাতায়াত করতে পারছে।

Comilla-gomti-bridge

সওজ কুমিল্লার নির্বাহী প্রকৌশলী ড. মোহাম্মদ আহাদ উল্লাহ জানান, ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের ফোরলেন বিশিষ্ট ২য় কাঁচপুর, মেঘনা ও মেঘনা-গোমতী সেতু দেশের অর্থনীতিতে ইতিবাচক প্রভাব পড়বে এবং আমদানি-রফতানি পণ্য পরিবহন অনেক সহজতর ও সাশ্রয়ী হবে। যাত্রী ও পণ্য পরিবহনের ক্ষেত্রে অতিরিক্ত ব্যয় হবে না। বর্তমানে সেতু কেন্দ্রিক কোনোও যানজট নেই এবং আসন্ন ঈদুল ফিতরে মহাসড়কে কোনো প্রকার ভোগান্তি ছাড়াই যানবাহন চলাচল করতে পারবে বলে আশা করছি।

হাইওয়ে কুমিল্লা রিজিয়নের পুলিশ সুপার মো. নজরুল ইসলাম জানান, ফোরলেনের ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়ক দিয়ে দৈনিক অন্তত ৩০ হাজার যানবাহন চলাচল করে। এসব যানবাহন এসে আগে একলেনে পুরনো মেঘনা-গোমতী, মেঘনা ও কাঁচপুর সেতুতে উঠতো। এতে যানবাহনের চাপ বেড়ে গিয়ে ধীরগতির কারণে প্রতিটি ধর্মীয়সহ নানা উৎসবে ও সরকারি ছুটির দিনে যানজটে আটকা পড়ে ভোগান্তি পোহাতে হতো যাত্রী ও চালকদের। কিন্তু এবার ঈদের আগে সেতুগুলো খুলে দেয়ার পর আর কোনো যানজট থাকবে না। এতে মানুষের সময়, খরচ ও ভোগান্তি কমবে এবং ব্যবসায়ীরা লাভবান হবেন। যানজটের কারণে এতদিন যে কোটি কোটি টাকার ক্ষতি হতো তা আর হবে না এবং এতে দেশের অর্থনীতিতে ইতিবাচক প্রভাব পড়বে।

মেঘনা-গোমতি সেতুতে ইটিসি সেবা দেশে প্রথমবারের মতো ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের মেঘনা ও গোমতি সেতুতে গত ৩০ এপ্রিল মেঘনা সেতু টোল প্লাজায় উইন্ডশিল্ড বেইজড ফার্স্ট ট্র্যাক ইলেকট্রনিক টোল কালেকশন (ইটিসি) উদ্বোধন করেন সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের সচিব মো. নজরুল ইসলাম। ওই প্রক্রিয়াটি আপাতত পরীক্ষামূলক ও সীমিত পরিসরে স্বয়ংক্রিয় পদ্ধতি চালু করা হয়েছে। এতে টোল দিতে যানবাহনগুলোকে টোল প্লাজায় থামতে হবে না, প্রয়োজন হবে না নগদ অর্থ দেয়ার। যাত্রী ও পণ্য পরিবহন হবে সময় ও ব্যয় সাশ্রয়ী। প্রাথমিক পর্যায়ে মেঘনা ও গোমতি সেতুর টোল প্লাজায় একটি করে লেনে এ পদ্ধতি চালু করা হয়েছে।

জনপ্রিয়তা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে লেনের সংখ্যা বাড়ানো হবে। এজন্য ইটিসি জনপ্রিয় করতে পরিবহন মালিক, শ্রমিকসহ সকলের সহযোগিতা কামনা করেছেন টোল আদায়কারী কর্তৃপক্ষ।

সংশ্লিষ্টরা জানান, ইটিসি পদ্ধতিতে গাড়ির সামনের আয়নার উপরিভাগে সংযুক্ত রেডিও ফ্রিকোয়েন্সি আইডেনটিফিকেশন বা আরএফআইডি ট্যাগের সঙ্গে টোল গেটের অ্যানটেনার সংকেতের মাধ্যমে টোল আদায় হবে। যানবাহন টোল প্লাজা পার হওয়ার সময় ব্যাংক হিসাব থেকে স্বয়ংক্রিয়ভাবে নির্ধারিত টোল কাটা হবে। টোল আদায়ের পরপরই ক্ষুদে বার্তার মাধ্যমে গ্রাহককে জানিয়ে দেয়া হবে টোল আদায় এবং ব্যাংক হিসাব থেকে টাকা কর্তনের সর্বশেষ তথ্য। এ প্রক্রিয়াটি শেষ হতে সর্বোচ্চ ১০ সেকেন্ড সময়ের প্রয়োজন হবে। ইটিসি সেবা গ্রহণের জন্য যানবাহনের রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন করতে হবে। এ কাজে প্রাথমিক পর্যায়ে সহযোগিতা দিচ্ছে ডাচ বাংলা ব্যাংক লিমিটেড।

উল্লেখ্য, কুমিল্লার দাউদকান্দির দ্বিতীয় মেঘনা-গোমতী সেতুর দৈর্ঘ্য ১ হাজার ৪১০ মিটার, অর্থাৎ প্রায় দেড় কিলোমিটার। এটি নির্মাণে ১ হাজার ৯৫০ কোটি টাকা ব্যয় হয়েছে। ১৭টি স্প্যানের ওপর নির্মিত এ সেতুর প্রস্থ ১৭.৭৫ মিটার। অপরদিকে ১২টি স্প্যানের ওপর নির্মিত দ্বিতীয় মেঘনা সেতুর দৈর্ঘ্য ৯৫০ মিটার, অর্থাৎ প্রায় ১ কিলোমিটার। এ সেতু নির্মাণে ব্যয় হয়েছে ১৭৫০ কোটি টাকা। উভয় সেতু চারলেন বিশিষ্ট এবং ১৭.৭৫ মিটার প্রস্থের সেতুতে দেড় মিটার ফুটপাত রাখা হয়েছে। এ দুই সেতুর নির্মাণকাজ তিন বছর পাঁচ মাসে সম্পন্ন করা হয়েছে।

নওগাঁ দর্পন
নওগাঁ দর্পন
এই বিভাগের আরো খবর