ব্রেকিং:
পোরশার হাপানিয়া সীমান্ত থেকে সাত বাংলাদেশীকে আটক করেছে ভারতের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ

বৃহস্পতিবার   ২১ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৭ ১৪২৬   ২৩ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

নওগাঁ দর্পন
সর্বশেষ:
ধামইরহাটের আগ্রাদ্বিগুন বাজারে সড়ক দুর্ঘটনায় ২ পুলিশ নিহত ধামইরহাটের গকুল গ্রাম থেকে গলায় ফাঁশ দেওয়া এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ পত্নীতলায় আদিবাসী প্রেমিক যুগলের লাশ উদ্ধার চাকুরির প্রলোভনে মান্দার মেয়েকে ঢাকায় ধর্ষণ বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বহরে যুক্ত হওয়া বোয়িং (৭৮৭-৮) ড্রিমলাইনার গাঙচিল উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ধামইরহাটে মাদক সেবনের দায়ে ৬ জনের জেল ও জরিমানা আত্রাইয়ে ডেঙ্গু সচেতনতা মূলক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় সাপাহারে পরিস্কার অভিযান সাপাহার ঐতিহ্যবাহী জবই বিলে মাছের পোনা অবমুক্ত আত্রাই থানা পুলিশের অভিযানে ৯জন আটক গ্রেনেড হামলার প্রতিবাদে নিয়ামতপুরে আলোচনা সভা সাপাহারের করল্যা চাষে বিপ্লব
২৯০

বিসিবির হাতেই এবার বিপিএল সম্প্রচারের দায়িত্ব

প্রকাশিত: ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮  

বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) বিগত আসরগুলোর সম্প্রচার নিয়ে কম বিতর্ক হয়নি। সম্প্রচারের নিম্নমান, মাত্রাতিরিক্ত বিজ্ঞাপন, ক্যামেরার বাজে ফ্রেমিং, সম্প্রচারের সঙ্গে জড়িতদের উপস্থাপন ভঙ্গি এসব নিয়ে গত আসরেও ছিল নিন্দা-সমালোচনার ঝড়। সেই সমালোচনার বাঁধ ভাঙতে এবার বিপিএলের সম্প্রচারের দায়িত্ব নিজেদের হাতেই রাখছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

সবকিছু ঠিকঠাক থাকলে আগামী ৫ জানুয়ারি শুরু হবে বিপিএলের ষষ্ঠ আসর। আসরকে সামনে রেখে এরইমধ্যে প্রস্তুতি শুরু করেছে আয়োজক বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড ও বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিল।

বিগত আসরগুলোর ত্রুটি-বিচ্যুতি দূর করে এবার বেশ কিছু জায়গায় পরিবর্তন আনতে চায় কর্তৃপক্ষ। এরই অংশ হিসেবে এবার সম্প্রচারের দায়িত্ব থাকবে বিসিবির অধীনেই।

বিসিবি সূত্রে জানা গেছে- বিপিএলের বিগত আসরগুলোর সম্প্রচার কাজের জন্য মাঠে মোট ১৭টি (কিংবা ১৮টি) ক্যামেরা ব্যবহার করা হতো। এতে পুরো মাঠ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের মত কভারেজ পাচ্ছে কি না এ প্রশ্ন ছিলই। এবার বাড়ছে ক্যামেরার সংখ্যা। ষষ্ঠ বিপিএলে সম্প্রচার কাজে ব্যবহার করা হবে মোট ২৬টি ক্যামেরা! গ্রাফিক্স কাজে নতুনত্ব আনার পাশাপাশি ব্যবহার করা হবে স্পাইডার ক্যাম, থাকছে ডিআরএসের ব্যবহারও। আর এ সব সুবিধা দিতে পারবে এমন শর্তে বড় কোনো প্রোডাকশন হাউজের সঙ্গেই চুক্তি করা হবে।

এদিকে সমালোচনা ছিল ধারাভাষ্য নিয়েও। ধারাভাষ্যকারদের অনেক ত্রুটি গত আসরে সমালোচনা কুড়িয়েছিল। এর আগে নিউজিল্যান্ডের ধারাভাষ্যকার ড্যানি মরিসন বেশ প্রাণবন্ত ছিলেন মাইক্রোফোন হাতে। এবারও তাকে নিয়ে আসা হচ্ছে বিপিএলের জন্য। থাকবেন বিশ্বমানের আরো কয়েকজন ধারাভাষ্যকার। এছাড়াও আম্পায়ারিং নিয়ে অসন্তোষ দূর করতে বিশ্বের প্রথম সারির কয়েকজন আম্পায়ারকে দেয়া হবে বিপিএলের ম্যাচগুলো পরিচালনার দায়িত্ব।

বিপিএল শুরুর সময়েও থাকবে ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচনের আমেজ। নির্বাচন পরবর্তী পরিস্থিতি কেমন থাকবে তা নিয়ে রয়েছে শঙ্কা। এজন্য এবারের বিপিএলে কোনো উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের আয়োজন রাখা হয়নি। কোনো উদ্বোধনী অনুষ্ঠান ছাড়াই এবার মাঠে গড়াবে বিপিএল।

নওগাঁ দর্পন
নওগাঁ দর্পন
এই বিভাগের আরো খবর