শনিবার   ২০ জুলাই ২০১৯   শ্রাবণ ৫ ১৪২৬   ১৭ জ্বিলকদ ১৪৪০

নওগাঁ দর্পন
সর্বশেষ:
ধামইরহাটে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষ্যে র‌্যালি ও পুরুস্কার বিতরণী মান্দায় ৩টি কলেজের এইচএসসি পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী সবাই ফেল! নিয়ামতপুরে জাতীয় মৎস্য সপ্তাহের উদ্বোধন আত্রাইয়ে মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভা মান্দায় তিন বছরের শিশুকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে আটক ১ রাণীনগরে ছাত্রলীগের উদ্যোগে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বৃক্ষ রোপণ রেলপথের দাবিতে হাঁপানিয়ায় মানববন্ধন নওগাঁয় মৎস্য সপ্তাহের উদ্বোধন উপলক্ষে র‍্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত মান্দায় বন্যা নিয়ন্ত্রন বাঁধ ভেঙে ৩১ গ্রাম প্লাবিত জাতীয় মৎস্য সপ্তাহ উপলক্ষে রাণীনগরে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা ও আলোচনা অনুষ্ঠিত
৩৬

বিএনপিকে ধ্বংস করছেন তারেক রহমান!

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১২ জুলাই ২০১৯  

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের একাধিক ভুল সিদ্ধান্তের কারণে বিএনপির ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। বিএনপির রাজনৈতিক দুর্দশার জন্য নাটের গুরু হিসেবে তারেককে দায়ী করছেন দলের নীতি নির্ধারণী ফোরামের অসংখ্য সদস্য।

কারাগারে গিয়ে খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করে দলটির একাধিক নেতারা তারেকের ব্যাপারে তাদের অসন্তুষ্টির কথা জানিয়ে এসেছেন বলেও নিশ্চিত করেছে একটি সূত্র।

এ প্রসঙ্গে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থায়ী কমিটির এক সদস্য বলেন, তারেক রহমানের রাজনৈতিক ভুলের চিত্র তুলে ধরে বড় বড় উপন্যাস লেখা যাবে। জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর বিএনপি থেকে জয়ী প্রার্থীদের শপথ গ্রহণ করা এবং না করা নিয়ে দ্বিধা, মনোনয়ন বাণিজ্য ও ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে জোট করা সবই ছিলো তারেক রহমানের ভুল। ভুল আর তারেক রহমান যেনো একে অপরের সমার্থক শব্দ। তার নির্বুদ্ধিতার জন্য দলের আজ এই বেহাল দশা। আমার মতে রাজনীতি ছেড়ে দেওয়াই হবে তারেক রহমানের নির্বুদ্ধিতার একমাত্র প্রায়শ্চিত্ত।

এ প্রসঙ্গে সংস্কারপন্থী হিসেবে পরিচিত বিএনপির স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য বলেন, ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে জোট করা ছিলো বিএনপির নেতৃত্বের সব চেয়ে বড় ভুল। কাদের সিদ্দিকী জোট থেকে বেরিয়ে যাবার মাধ্যমে তা বোঝা গেলো। নির্বাচনের প্রথম চার মাস সংসদে যাবেন না বললেও পরে ঠিকই তারেক রহমানের নির্দেশে বিএনপির জয়ী প্রার্থীরা সংসদে গেলো। মূলত খালেদা জিয়াকে দল থেকে মাইনাস করতেই তারেক রহমান ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে জোট করে সকল বিজয়ী প্রার্থীকে সংসদে পাঠিয়ে সংসদকে বৈধতা দিয়েছেন।

তিনি আরো বলেন, তারেক রহমানের পাতানো খেলাতেই দলের আজ নড়বড়ে অবস্থা। নেতাকর্মীরা একজন আরেক জনকে বিশ্বাস করতে পারছেন না। কারণ তারেক নিজের নিয়ন্ত্রণে দলকে পরিচালিত করতে আলাদাভাবে গ্রুপ সৃষ্টি করেছেন। যা দলের ভেতরকার বিভেদ আরো তীব্র করেছে।

তিনি এও বলেন, জীবনে আর রাজনীতি না করার মুচলেকা দিয়ে তারেক রহমান চিকিৎসা সেবা নিতে প্যারোলে মুক্তি পান। অথচ এখন তিনি বিএনপির নিয়ন্ত্রণ নিতে নিজের মাকে নিয়েও ষড়যন্ত্র করছেন। যা ইতোমধ্যেই আমাদের দৃষ্টিগোচরে এসেছে। বিএনপির বর্তমান অধঃপতনের অন্যতম নাটের গুরু যে তারেক রহমান এ নিয়ে আর কোনো সন্দেহের অবকাশ নেই।

নওগাঁ দর্পন
নওগাঁ দর্পন
এই বিভাগের আরো খবর