ব্রেকিং:
নওগাঁয় ১৫টি সাউন্ড বোমা, ৯টি ককটেল ও জিহাদী বইসহ ৬ শিবির ক্যাডার গ্রেফতার

মঙ্গলবার   ১৫ অক্টোবর ২০১৯   আশ্বিন ২৯ ১৪২৬   ১৫ সফর ১৪৪১

নওগাঁ দর্পন
সর্বশেষ:
পত্নীতলায় আদিবাসী প্রেমিক যুগলের লাশ উদ্ধার চাকুরির প্রলোভনে মান্দার মেয়েকে ঢাকায় ধর্ষণ বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বহরে যুক্ত হওয়া বোয়িং (৭৮৭-৮) ড্রিমলাইনার গাঙচিল উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ধামইরহাটে মাদক সেবনের দায়ে ৬ জনের জেল ও জরিমানা আত্রাইয়ে ডেঙ্গু সচেতনতা মূলক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় সাপাহারে পরিস্কার অভিযান সাপাহার ঐতিহ্যবাহী জবই বিলে মাছের পোনা অবমুক্ত আত্রাই থানা পুলিশের অভিযানে ৯জন আটক গ্রেনেড হামলার প্রতিবাদে নিয়ামতপুরে আলোচনা সভা সাপাহারের করল্যা চাষে বিপ্লব
৭৩

বিএনপিকে ধ্বংস করছেন তারেক রহমান!

ডেস্ক রিপোর্ট

প্রকাশিত: ১২ জুলাই ২০১৯  

বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের একাধিক ভুল সিদ্ধান্তের কারণে বিএনপির ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। বিএনপির রাজনৈতিক দুর্দশার জন্য নাটের গুরু হিসেবে তারেককে দায়ী করছেন দলের নীতি নির্ধারণী ফোরামের অসংখ্য সদস্য।

কারাগারে গিয়ে খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করে দলটির একাধিক নেতারা তারেকের ব্যাপারে তাদের অসন্তুষ্টির কথা জানিয়ে এসেছেন বলেও নিশ্চিত করেছে একটি সূত্র।

এ প্রসঙ্গে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থায়ী কমিটির এক সদস্য বলেন, তারেক রহমানের রাজনৈতিক ভুলের চিত্র তুলে ধরে বড় বড় উপন্যাস লেখা যাবে। জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পর বিএনপি থেকে জয়ী প্রার্থীদের শপথ গ্রহণ করা এবং না করা নিয়ে দ্বিধা, মনোনয়ন বাণিজ্য ও ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে জোট করা সবই ছিলো তারেক রহমানের ভুল। ভুল আর তারেক রহমান যেনো একে অপরের সমার্থক শব্দ। তার নির্বুদ্ধিতার জন্য দলের আজ এই বেহাল দশা। আমার মতে রাজনীতি ছেড়ে দেওয়াই হবে তারেক রহমানের নির্বুদ্ধিতার একমাত্র প্রায়শ্চিত্ত।

এ প্রসঙ্গে সংস্কারপন্থী হিসেবে পরিচিত বিএনপির স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য বলেন, ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে জোট করা ছিলো বিএনপির নেতৃত্বের সব চেয়ে বড় ভুল। কাদের সিদ্দিকী জোট থেকে বেরিয়ে যাবার মাধ্যমে তা বোঝা গেলো। নির্বাচনের প্রথম চার মাস সংসদে যাবেন না বললেও পরে ঠিকই তারেক রহমানের নির্দেশে বিএনপির জয়ী প্রার্থীরা সংসদে গেলো। মূলত খালেদা জিয়াকে দল থেকে মাইনাস করতেই তারেক রহমান ঐক্যফ্রন্টের সঙ্গে জোট করে সকল বিজয়ী প্রার্থীকে সংসদে পাঠিয়ে সংসদকে বৈধতা দিয়েছেন।

তিনি আরো বলেন, তারেক রহমানের পাতানো খেলাতেই দলের আজ নড়বড়ে অবস্থা। নেতাকর্মীরা একজন আরেক জনকে বিশ্বাস করতে পারছেন না। কারণ তারেক নিজের নিয়ন্ত্রণে দলকে পরিচালিত করতে আলাদাভাবে গ্রুপ সৃষ্টি করেছেন। যা দলের ভেতরকার বিভেদ আরো তীব্র করেছে।

তিনি এও বলেন, জীবনে আর রাজনীতি না করার মুচলেকা দিয়ে তারেক রহমান চিকিৎসা সেবা নিতে প্যারোলে মুক্তি পান। অথচ এখন তিনি বিএনপির নিয়ন্ত্রণ নিতে নিজের মাকে নিয়েও ষড়যন্ত্র করছেন। যা ইতোমধ্যেই আমাদের দৃষ্টিগোচরে এসেছে। বিএনপির বর্তমান অধঃপতনের অন্যতম নাটের গুরু যে তারেক রহমান এ নিয়ে আর কোনো সন্দেহের অবকাশ নেই।

নওগাঁ দর্পন
নওগাঁ দর্পন
এই বিভাগের আরো খবর