মঙ্গলবার   ২০ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ৪ ১৪২৬   ১৮ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

নওগাঁ দর্পন
সর্বশেষ:
ঠাকুরগাঁওয়ে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেল ৮ জনের রাণীনগরে গোয়াল ঘরের তালা ভেঙ্গে কৃষকের ৫টি গরু চুরি পোরশায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে দুই বছরের শিশুর মৃত্যু রাণীনগরে মশক নিধন ও পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম উপলক্ষে র‍্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত নওগাঁয় তরুন তরুনীদের সম্মেলন অনুষ্ঠিত গনসচেতনতা সপ্তাহ উপলক্ষে নওগাঁ সদর মডেল থানা পুলিশের র‌্যালী সাপাহারে জনসচেতনতা সপ্তাহ উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা রাণীনগরে গাঁজাসহ আটক ২ নওগাঁ ১১ জনের ডেঙ্গু সনাক্ত, ৮ জন চিকিৎসাধীন আত্রাই থানা পুলিশের সচেতনতা মূলক র‌্যালি অনুষ্ঠিত ধামইরহাটে গনসচেতনতা দিবস উপলক্ষে র‍্যালী অনুষ্ঠিত সাপাহারে জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে মশক নিধন লিফলেট বিতরণ ৬ দফা দাবিতে নওগাঁ প্রেসক্লাবে হেযবুত তওহীদের সংবাদ সম্মেলন মান্দায় ‘মাদক ও ইভটিজিং সচেতনতা কার্যক্রম’র আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত
৫৩৯

ধান সংগ্রহে ডিসিদের কার্যক্রম জোরদারের নির্দেশ খাদ্যমন্ত্রীর

ডেস্ক নিউজ

প্রকাশিত: ১৬ জুলাই ২০১৯  

ন্যায্যমূল্য নিশ্চিতে কৃষকদের কাছ থেকে ধান সংগ্রহে জেলা প্রশাসকদের (ডিসি) কার্যক্রম জোরদার করার নির্দেশ দিয়েছেন খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার।

মঙ্গলবার (১৬ জুলাই) সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ কক্ষে জেলা প্রশাসক (ডিসি) সম্মেলনের তৃতীয় দিনের প্রথম অধিবেশন শেষে খাদ্যমন্ত্রী সাংবাদিকদের  এ কথা জানান।

খাদ্য মন্ত্রণালয় এবং দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে জেলা প্রশাসকদের এ কার্য অধিবেশন হয়। মন্ত্রিপরিষদ সচিব মোহাম্মদ শফিউল আলম এতে সভাপতিত্ব করেন।

খাদ্যমন্ত্রী বলেন, ‘আমরা ধান কিনছি, এবার চার লাখ টন (বোরো) ধান কিনব। অথচ গতকাল পর্যন্ত এক লাখ ১৫ হাজার টন ধান কেনা হয়েছে। ওনারা (ডিসি) সাহায্য করছেন, সেটা আরও জোরদার করার জন্য এবং আমাদের লোকেরা যাতে আরও বেশি অ্যাকটিভ হয়, ডিসি সাহেবরা যাতে নির্বাহী অফিসারদের মাঠে নামিয়ে দিয়ে কৃষকদের কাছ থেকে ধান কিনতে পারেন, সে জন্য আমরা নির্দেশনা দিয়েছি।’

তিনি বলেন, ‘আরেকটি নির্দেশনা হলো, প্রত্যেক জেলায় আমাদের নিরাপদ খাদ্যের অফিস হবে। মানুষ যাতে ভেজালমুক্ত খাবার গ্রহণ করতে পারে, সে জন্য তাদের আরও কঠোর হওয়ার জন্য আমরা নির্দেশ দিয়েছি।’

এখন দেশের বিভিন্ন জেলায় বন্যা চলছে। আগামীকে কোনো খাদ্য সংকটের আশঙ্কা আছে কি না- জানতে চাইলে সাধন চন্দ্র মজুমদার বলেন, ‘কোনো সংকট নেই। আমাদের খাদ্যের পর্যাপ্ত মজুত আছে। খাদ্যগুদামে শুধু খাদ্যই নয়, ত্রাণও পর্যাপ্ত মজুদ আছে। যেকোনো অবস্থা মোকাবিলা করতে আমরা প্রস্তুত আছি।’

‘এখন ফসল নষ্ট হওয়ার কোনো অবকাশ নেই, মাঠে কোনো ফসল নেই। এখন ধান লাগানোর সময়।’

খাদ্যমন্ত্রী আরও বলেন, ‘বিভিন্ন জায়গায় গোডাউন নির্মাণ ও নিরাপদ খাদ্যের অফিস করার প্রস্তাব দিয়েছেন ডিসিরা। এগুলো আমরা বানাব, আমরা প্রকল্প গ্রহণ করেছি।’

এই অধিবেশনে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ প্রতিমন্ত্রী এনামুর রহমান ও বিভাগীয় কমিশনররা উপস্থিত ছিলেন

নওগাঁ দর্পন
নওগাঁ দর্পন
এই বিভাগের আরো খবর