সোমবার   ১৯ আগস্ট ২০১৯   ভাদ্র ৩ ১৪২৬   ১৭ জ্বিলহজ্জ ১৪৪০

নওগাঁ দর্পন
সর্বশেষ:
ঠাকুরগাঁওয়ে দুই বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে প্রাণ গেল ৮ জনের রাণীনগরে গোয়াল ঘরের তালা ভেঙ্গে কৃষকের ৫টি গরু চুরি পোরশায় বিদ্যুৎস্পৃষ্টে দুই বছরের শিশুর মৃত্যু রাণীনগরে মশক নিধন ও পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম উপলক্ষে র‍্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত নওগাঁয় তরুন তরুনীদের সম্মেলন অনুষ্ঠিত গনসচেতনতা সপ্তাহ উপলক্ষে নওগাঁ সদর মডেল থানা পুলিশের র‌্যালী সাপাহারে জনসচেতনতা সপ্তাহ উপলক্ষে র‌্যালী ও আলোচনা সভা রাণীনগরে গাঁজাসহ আটক ২ নওগাঁ ১১ জনের ডেঙ্গু সনাক্ত, ৮ জন চিকিৎসাধীন আত্রাই থানা পুলিশের সচেতনতা মূলক র‌্যালি অনুষ্ঠিত ধামইরহাটে গনসচেতনতা দিবস উপলক্ষে র‍্যালী অনুষ্ঠিত সাপাহারে জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে মশক নিধন লিফলেট বিতরণ ৬ দফা দাবিতে নওগাঁ প্রেসক্লাবে হেযবুত তওহীদের সংবাদ সম্মেলন মান্দায় ‘মাদক ও ইভটিজিং সচেতনতা কার্যক্রম’র আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত
৪২৬

দীপিকাকে রণবীরের খোলা চিঠি!

প্রকাশিত: ৬ ফেব্রুয়ারি ২০১৯  

স্ত্রী দীপিকা পাড়ুকোনকে চিঠি লিখেছেন রণবীর সিং। যাঁর সঙ্গে প্রতিদিন দেখা হচ্ছে, কথা হচ্ছে, বেড়ানো হচ্ছে; তাঁকে কেন চিঠি লিখতে হবে! তাও আবার গোপনে নয়, স্ত্রীকে তিনি যে চিঠি লিখেছেন, তা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে প্রকাশ করেছেন। এই চিঠিতে স্ত্রীর প্রতি রণবীর সিংয়ের ভালোবাসা আর শ্রদ্ধা প্রকাশ পেয়েছে। এখানে দীপিকাকে ‘অত্যন্ত বিনয়ী’, ‘অন্যের প্রতি শ্রদ্ধাশীল’, ‘দয়ালু’, ‘সংবেদনশীল’, ‘বুদ্ধিমতী’, ‘সুন্দর মনের অধিকারী’ বলে উল্লেখ করেছেন। নিজেকে ‘বিশ্বের সবচেয়ে গর্বিত স্বামী’ বলে উল্লেখ করেছেন বলিউডের এ সময়ের অন্যতম জনপ্রিয় নায়ক। গত ৫ জানুয়ারি ছিল দীপিকা পাড়ুকোনের জন্মদিন। সেদিন বলিউডের এ সময়ের অন্যতম জনপ্রিয় নায়িকা নিজের ওয়েবসাইট চালু করেছেন। এই ওয়েবসাইটের ঠিকানা www.deepikapadukone.com। রণবীর সিং তাঁর খোলা চিঠি এই ওয়েবসাইটে প্রকাশ করেছেন।

চিঠিতে স্ত্রীর প্রশংসা করে রণবীর সিং লিখেছেন, ‘এ পর্যন্ত যত মানুষের সঙ্গে দেখা হয়েছে, তাদের মধ্যে দীপিকা ব্যতিক্রম। তিনি অসামান্য ব্যক্তিত্ব। তাঁকে নিয়ে যখন কিছু বলতে যাই, তখন নিজের অনুভূতিকে লুকিয়ে রাখতে পারি না। আসলে তাঁর সম্পর্কে বলতে গেলে ভাষা হারিয়ে ফেলি।’

রণবীর সিং লিখেছেন, ‘দীপিকার মাঝে অন্য এক ভুবন লুকিয়ে আছে। সেখানে আছে শুধু প্রেম, ভালোবাসা, দয়া, বুদ্ধিমত্তা, সৌন্দর্য, ব্যক্তিত্ব আর সংবেদনশীলতা। সব কটি গুণই তাঁকে একজন সত্যিকারের শিল্পী হয়ে উঠতে সাহায্য করেছে। আর এ কারণেই আজ বিশ্বের অন্যতম তুখোড় অভিনেত্রী দীপিকা। তিনি সবার সঙ্গে সরাসরি কথা বলতে ভালোবাসেন, সব সময় হাসিখুশি থাকেন। কারও ব্যাপারে পক্ষপাতিত্ব পছন্দ করেন না। তাঁর মাঝে যে শক্তি লুকিয়ে আছে, তা লোহার মতো মজবুত। তাঁর নিয়মানুবর্তিতা, প্রতিজ্ঞাবদ্ধতা সবার জন্য উদাহরণ হতে পারে। যেভাবে তিনি খ্যাতি আর সম্মান অর্জন করেছেন, একজন সৎ নারীর পক্ষেই তা সম্ভব।’

তিনি আরও লিখেছেন, ‘কখনো কখনো চুপ করে দাঁড়িয়ে মুগ্ধ চোখে শুধু তাঁকে দেখি। আমি জানি, তিনি এমন একজন ব্যক্তি, যিনি সবার চেয়ে আলাদা। তাঁর খুবই ইতিবাচক মানসিকতা। আমার কাছে মনে হয়, তিনি নিষ্পাপ। তাঁর মধ্যে লুকিয়ে থাকা একটা শিশুমন আমি দেখতে পাই। প্রতিদিন তিনি আমাকে অনুপ্রাণিত করেন। আমার জীবনকে তিনি আরও সুন্দর করে তুলেছেন। সত্যি বলছি, আমার জীবনে আলো হয়ে আছেন দীপিকা।’

গত বছরের ১৪ ও ১৫ নভেম্বরে ইতালির লেক কোমোতে কঙ্কানি ও সিন্ধি রীতিতে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন জনপ্রিয় তারকা জুটি রণবীর সিং ও দীপিকা পাড়ুকোন। বলিউডে বছরের অন্যতম আলোচিত বিয়ে ছিল এটি।

নওগাঁ দর্পন
নওগাঁ দর্পন
এই বিভাগের আরো খবর