ব্রেকিং:
পোরশার হাপানিয়া সীমান্ত থেকে সাত বাংলাদেশীকে আটক করেছে ভারতের সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফ

রোববার   ১৭ নভেম্বর ২০১৯   অগ্রাহায়ণ ৩ ১৪২৬   ১৯ রবিউল আউয়াল ১৪৪১

নওগাঁ দর্পন
সর্বশেষ:
ধামইরহাটের আগ্রাদ্বিগুন বাজারে সড়ক দুর্ঘটনায় ২ পুলিশ নিহত ধামইরহাটের গকুল গ্রাম থেকে গলায় ফাঁশ দেওয়া এক যুবকের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ পত্নীতলায় আদিবাসী প্রেমিক যুগলের লাশ উদ্ধার চাকুরির প্রলোভনে মান্দার মেয়েকে ঢাকায় ধর্ষণ বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের বহরে যুক্ত হওয়া বোয়িং (৭৮৭-৮) ড্রিমলাইনার গাঙচিল উদ্বোধন করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ধামইরহাটে মাদক সেবনের দায়ে ৬ জনের জেল ও জরিমানা আত্রাইয়ে ডেঙ্গু সচেতনতা মূলক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষায় সাপাহারে পরিস্কার অভিযান সাপাহার ঐতিহ্যবাহী জবই বিলে মাছের পোনা অবমুক্ত আত্রাই থানা পুলিশের অভিযানে ৯জন আটক গ্রেনেড হামলার প্রতিবাদে নিয়ামতপুরে আলোচনা সভা সাপাহারের করল্যা চাষে বিপ্লব
৭৯

একসাথেই ১৭ সন্তান জন্ম দিলেন মা, নেট দুনিয়ায় ভাইরাল!

ডেস্ক নিউজ

প্রকাশিত: ২৭ জুলাই ২০১৯  

পৌরাণিক কাহিনি মহাভারতে একসঙ্গে ১০০ পুত্রের জননী হয়েছিলেন রাজমাতা গান্ধারী। কিন্তু সে তো কল্পকাহিনি। বাস্তবে এত সন্তানের জন্ম দেয়া সম্ভব নয় বলে জানাচ্ছে বিজ্ঞান। তবে যুক্তরাষ্ট্রের এক নারী একসঙ্গে ১৭ সন্তানের জন্ম দিয়েছেন বলে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে তুমুল হৈচৈ শুরু হয়েছে।

ঘটনাটি আশ্চর্যের হলেও ইতোমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে ক্যাথরিন ব্রিজ নামের মার্কিন ওই নারীর অন্তঃসত্ত্বাকালীন ছবি। সঙ্গে ভাইরাল হয়েছে তার গর্ভে একসঙ্গে জন্ম নেয়া ১৭ সন্তানের ছবিও!

চাঞ্চল্যকর এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহারকারীদের মধ্যে তৈরি হয়েছে প্রবল কৌতূহল। অনেকেই প্রশ্ন তুলেছেন, বাস্তবেই কী এমনটা সম্ভব? সেই প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে গিয়ে প্রকাশ্যে এসেছে এমন এক সত্য, যা শুনে সবাই তো বিস্মিত।

বিভিন্ন গণমাধ্যমের প্রতিবেদন থেকে জানা গেছে, গত ৩০ মে রিচার্ড ক্যামেরিন্টা ডে নামের এক ফেসবুক ব্যবহারকারী ছবিসহ একটি পোস্ট করেন। যেখানে তিনি দাবি করেন, বিশ্ব রেকর্ড সৃষ্টি করেছেন মার্কিন নারী ক্যাথরিন ব্রিজ।

ওই পোস্টে তিনটি ছবি দিয়ে রিচার্ড জানান, একসঙ্গে ১৭টি ছেলে সন্তানের জন্ম দিয়েছেন ক্যাথরিন। প্রথম ছবিটিতে ক্যাথরিনকে অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় দেখা গেলেও, বাকি দুটি ছবিটিতে তার ১৭টি শিশুকে দেখা যায়। রিচার্ড ওই ছবিগুলো পোস্ট করার পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে হৈচৈ পড়ে যায়। পোস্টটি শেয়ার হয় ৩৩ হাজারের বেশিবার।

রিচার্ডের সেই পোস্টের সত্যতা যাঁচাই করতে গিয়ে বেরিয়ে আসে প্রকৃত সত্য। জানা গেছে, ছবিটি দিয়ে প্রথম প্রতিবেদন প্রকাশ করে ‘ওয়ার্ল্ড নিউজ ডেইলি রিপোর্ট’ নামের একটি ওয়েবসাইট। ফেক নিউজ বা ভুয়া খবর প্রকাশ করার জন্য তারা জনপ্রিয়।

নওগাঁ দর্পন
নওগাঁ দর্পন
এই বিভাগের আরো খবর